দুরন্ত

দুরন্ত

প্যাডেলের সাইকেল, ডুব সাতারের মজা, মার্বেল ঘুড়ি,
ইস্কুল বাড়ি আর শরতের কাশফুল, বৃষ্টির মেঘ..
রূপকথা জোছনায় গল্পের চরকা, সুতো কাটা বুড়ি,
বড়শির মাছ ধরা, ছুটোছুটি কৈশোর, তরুণ আবেগ।
জননীর আঁচলের রৌদ্রের হাসি মাখা আদরের বন্যা,
বাধাহীন শৈশবে সাথীদের ডাকে মাঠে রাখালিয়া তান,
অশ্বথের মমতায় নির্জনতার ছায়া, দুপুরের কান্না..
পদাবলী সুরে ডাকে কিশোরের বাঁশিতে সবুজের বান।
.
প্রশান্ত স্রোত আজ তরঙ্গ ভাঙা জোয়ারের কাছে লীন,
ফেলে আসা সবুজের স্বপ্ন মিছিল আর আকাশের গান,
বিস্মৃতি স্পন্দনে ফেলে আসা তারুণ্যে আগুনের দিন,
স্বপ্নের অসীমে নোঙর ছেঁড়ার ডাক কিশোরের প্রান।
কোমলতা মাখা বুনো স্বপ্নিল কৈশোর সবুজের গহীনে..
হিরণ্য প্রভাতের সূর্যের ঋণে চঞ্চলতায় জমা,
স্মৃতিহীন ঝাপসা সময়ের অরণ্যে রাত্রির তুহিনে..
শীতলতা খুঁজে ফেরে দুরন্ত কিশোরের আকণ্ঠ ক্ষমা।

ইচ্ছের ১৯/২০

ইচ্ছের ১৯/২০

স্নিগ্ধ বিকেলের মাতাল হাওয়াতে..
মন সাগরের বালুকাবেলায়,
স্বর্ণালী দিন হারিয়ে যাওয়াতে..
উদাসীন স্মৃতি উদাসী খেলায়,
রঙধনু রঙে শূন্য জীবনে..
পাখা মেলে কামনারা স্বপনে,
মন পোড়ে নিঃসঙ্গ আগুনে,
বেঁচে থাকে ভালোবাসা গোপনে,
প্রেম সাথী খোঁজে..
জীবনে মরনে।

মিথ্যের ভুল সুখের চাওয়াতে..
প্রণয়ের প্রতারণার মেলায়,
আমরণ ভালোবাসার মাওয়াতে..
ঘুম স্বপনের তন্দ্রা হেলায়,
ভাবনায় প্রিয়তমার গড়নে..
শত কবিতার ছিন্ন বসনে,
মন পড়ে থাকে ক্লান্তির আসনে,
ছুটি নেই তবু রুদ্ধ জীবনে,
সুখ খুঁজে ফেরে..
আপন ভুবনে।

কমলিনী

কমলিনী

ভাবনার অজানায় প্রণয়ের পদ্ম ধূসরের বৃন্তে,
হৃদয়ের সীমানায় দৃঢ় সংগোপনে প্রিয়ার অনন্তে,
আরক্ত লালিমার আহবানে ডাকে আবেশের শতদল,
তমারূপ সুরূপার অভিরাম পূরবী আঁকে প্রতিপল।
.
উষ্ণতা ধূপে প্রেম অর্চনা বাতাসের গান..
স্বপ্নের নীলে ঝড়ো কামনায় বাজে মন-প্রান,
কল্পনা চাঁদোয়ায় জোছনার ঢেউয়ে ইচ্ছের স্রোতে ভাসা,
অদ্রিকা প্রেয়সীর অপরূপ প্রেমে সুনিবিড় ভালোবাসা।
.
অধরের পাপড়িতে মৃদু হাসে কামনার বীণ,
প্রিয় আঁখি পল্লবে রোদ মাখে স্বর্ণালী দিন,
কমলিনী বঁধুয়ার তৃষ্ণার বারিধারা খেয়ালী মনের,
প্রণয়ের মেঘে ঢাকা কবিতায় উদাসীন বিজন ক্ষণের।
.
পদ্মিনী রূপসীর তন্ময় বৃত্তে ভালোবাসা অন্ধ,
সৌরভ ভেজা প্রজাপতির ডানা হৃদয়ের সোঁদা গন্ধ,
পুষ্পের অনুরাগে আরতি বসন্তে অদিতির রূপে..
অদ্বৈত প্রেমধামে মর্তের প্রেমদেবী ভীষণ স্বরূপে।

জীবনের উত্থান

জীবনের উত্থান

সূর্যের আহবানে প্রত্যূষে পিছু হটে আঁধারের ফেউ,
প্রলয় নিনাদে ডাকে উদাত্ত গর্জনে জীবনের ঢেউ,
গ্রহণের নিগ্রহে দামোদর বাঁধ ভাঙা উচ্ছ্বাসে প্রান,
সাগরের উত্তাল অমিয় দিগন্তে নাবিকের গান।
.
আভাদেব স্পন্দনে আলোক তরীতে ভাসে হৃদয়ের কূল,
প্রদীপ্ত বিকিরণে উত্তাপে ক্ষয়ে যায় তামসিক ভুল,
চাতকের তৃষ্ণা আকাশের টানে মোছে গোধূলির নীড়,
রক্তিম দিগন্তে আদিত্য উজ্জ্বল আলোকের ভিড়।
.
দিবসের জাগরণী সৌরভে প্রশান্ত ছায়ার বীথি,
তারুণ্য প্রতিপাদে ভরা বহু জনমের শুক্লা তিথি,
প্রভাতের চমকে নূতনের সুরে হাসে আগমনী বীণ,
মহিমার উদ্ভাসে জীবনের উত্থানে জোয়ারের দিন।