স্বপ্ন নিশানা

স্বপ্ন নিশানা

জীবনের সৈকতে আগুন জ্বলা রূপালী বালুরকনায়..
প্রমূর্ত ছায়াদের বেলা শেষের ভয়াল অট্টহাসি,
মুক্তির লালিমায় বিকেলের সীমানায় সন্ধ্যা ঘনায়,
বায়ুর প্রলয়ে কালের জোয়ার ভীষণ সর্বনাশী।
দূরাগত সূর্যের হাতছানি ডাক লুকোনো সোনায়,
মানবের যাত্রা অনাগত উত্থান জীবনের বানভাসি,
আলো গতিময়তায় মঙ্গল পূর্ণতা কানায় কানায়,
কিরণের তোরণে অমৃত জাগরণে আঁধারের ফাঁসি।

মহাকাল সুড়ঙ্গ আলোকিত নিশানার বার্তা জানায়,
সুগভীর চিন্তার সমুদ্রে অতীতের ফেনিল জলরাশি,
সংকল্পের রথে দিনের অবোধ আনুগত্য মানায়..
স্বপ্নের স্তম্ভের সময়ের সেতুতে বিজয়ের বাঁশি।
কালের ভৈরব অমরের নিঝরের শব্দ শোনায়,
লক্ষ্যের বোবা তারুণ্য চিৎকার করে,”ভালোবাসি”
প্রণয়ের জীর্ণতা মধ্যাহ্নের পথে শঙ্কা শানায়,
অপেক্ষার বিমূর্ত সাঁঝে হৃদয় এখনো বনবাসী।

ক্রান্তিকাল

ক্রান্তিকাল

বিস্মৃতির তীর ঘেসে ছুটে চলে অন্ধ সময়,
খসে গেছে আকাশের জোছনারা,
খসে গেছে রাত্রির ভয়,
এখন ক্রান্তিকাল, ভুল করে ভুল,
স্মৃতিদের তন্দ্রা তময়…
মুছে গেছে আঁচলের কারা,
এমনকি মুছে গেছে ব্যাথাদের ক্ষয়।

অপেক্ষার অন্তরলোক বাড়ায় না আর মায়া,
এখন মধ্যাকাশে ফেরারি কালের ছায়া,
এখন আঁচলের বন্ধনে বাঁধে মমতার জায়া,
এখনও রাত্রি গভীর,
অযথাই কবিতায় ভাবনারা উদাসীনে…
হারায় স্মৃতির কায়া।

প্রহেলিকা হলুদের প্রান্তর

প্রহেলিকা হলুদের প্রান্তর

গোধূলির প্রান্তে হিমেলের গহীনে কুয়াশার প্রান্তর,
স্মৃতির অনন্তে আবছায়া নির্জনে সময়ের বন্দর,
হলুদের ফ্যাকাসে স্পন্দনে মাখা, সাদাকালো অন্তর,
বিস্মৃতি হাহাকার মৃত্যুর গলিতে জীবনের মন্তর।
নিরাসক্তের কারাগার, আবদ্ধ হলুদের গলিত বাসর,
প্রহেলিকা বাতাসে ধোঁয়া ধোঁয়া হতাশার চাঁদনী পসর,
অজানা আশংকায় বুকের গভীরে বাজে ভয়ের কাসর,
অস্তের বিবর্ণে সূর্যের নিভু নিভু হিমের দোসর।
.
নিঃশব্দ ভূতুড়ে জীবমৃত শেকলে কালের নূপুর,
নির্জীব দিনে দুঃস্বপ্নের ঝাপসা ধূসর দুপুর,
হৃদয়ের পিপাসা সুদূরের হাতছানি গানে ভরপুর,
ঘোলাটের ভেজা মেঘে ভাবনার বৃষ্টির টাপুরটুপুর।
মাঠের পাষাণ, নিস্পন্দ একাকী শীতল প্রহর,
ভাবনার গহীনে অসাড়ের অচেনা শোকের লহর,
সন্ধানী জীবনের আর্তনাদে কালো যাদুর বহর,
ছায়াময় অতীতের আহবানে শূন্য মৃতের শহর।

বিকেলের আয়না

বিকেলের আয়না

আরক্ত বিকেলের রৌদ্রের গানে সাজে পদ্মপুকুর,
গোধূলির রূপ, লালিমা শিখার নাচ, জলের নূপুর,
রাঙা আলো উত্তাপ, লজ্জার আভরণে বাতাসের গান,
জলের আয়না লাল বিষণ্ণ পৃথিবীর হৃদয়ের থান,
দিবসের বেলা, শেষের রক্ত খেলা ছড়ানো আবীর,
আগমনী অন্তিম সময়ের সঞ্চিত কালের গভীর,
রক্তিম আকাশের বর্ণীল দিগন্তে মরীচিকা ছায়া,
জলের বাসর ক্ষণে ছায়া ছায়া গহীনের অকুণ্ঠ মায়া।
কাঞ্চন বিকেলের সিঁদুরের রঙে রঙতুলির আঁচড়,
জলাশয় দিবাকর মায়া প্রতিফলনের পদ্ম কোঁচড়,
সলিলের সুন্দরে তপনের গাঢ় ভালোবাসার আঁচল..
জীবনের উৎসবে আলোকিত দীপ্য তৃষ্ণা সজল,
স্বর্গীয় আভাতে প্রণয়ের মহিমায় হৃদয়ের নীর..
অম্বুলোকের ধ্যানে ভাস্কর মগ্ন জীবনের ভিড়,
সময়ের জাগরণে ক্ষয়ে যায় উত্তাল কালের সাবেক,
স্মৃতিদের ক্যানভাসে পড়ন্ত বিকেলের স্নিগ্ধ আবেগ।