অযথাই

তারপর একদিন, হতাশায় উত্তাল নবান্নে
হলুদ কাব্য গাঁথা এলোমেলো পংতি…
তারপর একদিন, প্রভাত নিখোঁজের অরন্যে…
আলো খোঁজে পর্দায় জীবনের ভাংতি;
তমার সিঁথির লালে পবিত্র হোম জ্বলে…
কপোলেতে আঁকা— মধ্যমায় বিন্দু;
তমার নোলক দোলে উত্তরীয় বাঁকা ছলে-
অধরেতে বাঁকা— সর্বগ্রাসী সিন্ধু…
.
তারপর একদিন, মেঘের কুঁচির ভাঁজে নৃত্য
জড়সড় বাতাসের সরসর মাদলে…
তারপর একদিন, লালিমায় ঝাপসা আঁকা বৃত্ত
প্রদীপ পাদ্য হাতে হোমানল আদলে;
তমার দৃষ্টিভালে কাজলের টানা টানা ধনুকে…
ক্ষয় মন, ক্ষয় বুকে উন্মাদ টঙ্কার-
তমার প্রেম যেন পরাগ মুক্তো গুড়ো ঝিনুকে
ক্ষয় হয়, ক্ষয় সাঝে রক্ত গন্ধমাখা হুঙ্কার…
.
তারপর একদিন, লুণ্ঠন নিশীথের নিষাদে…
মিলায় জয়রথ, কাঁকনের শিহরণ-
তারপর একদিন, আরশির ভাঙা মুখ বিষাদে…
হারায় স্বপ্ন-গাথা, পিছু ডাকা আহরণ ।
.
ঠোংগার ভুলে যাওয়া দেবী মুখ দর্শন…
খামোখাই স্মৃতি মাখা হৃদয়ের কর্ষণ…

0 replies

Leave a Reply

Want to join the discussion?
Feel free to contribute!

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *